School refusal is a common issue for children, and it can be hard to know what to do. Many schools have a policy that allows for school refusal, but in some cases, the policy may not be clear. Here are some ways you can help your child deal with this issue:

  1. Talk about the problem: It’s important to talk about school refusal with your child before it becomes an issue. Tell them how you want them to handle it and why. Let them know that there are reasons why they might want to miss school and that you’ll be there for them if they need support while they’re dealing with the problem.
  2. Don’t force them: If your child refuses to go to school, don’t force them into it. Instead, try to find out what their reasoning is and work together on it—this way the two of you can come up with a solution together.
  3. Make sure they’re getting enough sleep: School refusal often happens when children aren’t getting enough sleep because their bodies need rest so that they can focus better during class hours or homework. Make sure that your child is getting enough sleep each night by establishing a consistent sleep routine and avoiding stimulating activities before bedtime.

The amount of sleep a child needs depends on their age. Here are the general guidelines for how much sleep children need:

  • Infants (0-3 months): 14-17 hours per day
  • Infants (4-11 months): 12-15 hours per day
  • Toddlers (1-2 years): 11-14 hours per day
  • Preschoolers (3-5 years): 10-13 hours per day
  • School-aged children (6-13 years): 9-11 hours per day
  • Teenagers (14-17 years): 8-10 hours per day

It’s important to remember that these are general guidelines and some children may need more or less sleep than others. Furthermore, for school-aged children between 5 to 15 years old, it’s recommended to follow a standard sleep schedule that aligns with their early morning routine, such as sleeping by 10 p.m. if their school starts at 8 a.m.

  1. Encourage positive coping strategies: Help your child learn positive ways to cope with stress and anxiety, such as deep breathing exercises, meditation, or talking to a trusted friend or family member.
  2. Seek professional help: If your child’s school refusal is persistent or severe, it may be time to seek professional help. A mental health professional can work with your child to identify the underlying causes of their school refusal and provide strategies to help them overcome it.

In general, schools should try to support students who are refusing to attend school. The school will often work with parents on the best way to handle the situation, such as by offering counseling or other resources. Teachers may also help by finding ways to make the student’s home a safe place for him or her to stay—for example, by keeping their room free of distractions and giving them access to snacks and games. If a student refuses to go to school or be in any other setting that is considered school-related (like extracurricular activities), teachers and parents alike need to take action immediately.

In conclusion, dealing with school refusal can be challenging for both parents and children. However, by taking a proactive and supportive approach, you can help your child overcome this issue and succeed academically and socially. Remember to communicate openly with your child, seek professional help when needed, and work together to find the best solution for everyone involved.

বাংলায় পরুনঃ

স্কুল প্রত্যাখ্যান শিশুদের জন্য একটি সাধারণ সমস্যা, এবং এ সময়ে অভিভাবক হিসেবে কি করতে হবে তা বুঝতে পারা সত্যিকার অর্থেই কঠিন। অনেক স্কুলের একটি নীতি আছে যা স্কুল প্রত্যাখ্যানের অনুমতি দেয়, কিন্তু কিছু ক্ষেত্রে, নীতিটি স্পষ্ট নাও হতে পারে। এই সমস্যাটি মোকাবেলা করার জন্য আপনি আপনার সন্তানকে সাহায্য করতে পারেন এমন কিছু উপায় এখানে রয়েছে:

  1. সমস্যা সম্পর্কে কথা বলুন: এটি একটি সমস্যা হয়ে ওঠার আগে আপনার সন্তানের সাথে স্কুল প্রত্যাখ্যান সম্পর্কে কথা বলা গুরুত্বপূর্ণ। তাদের বলুন যে আপনি কীভাবে এটি পরিচালনা করতে চান এবং কেন। বাচ্চাদের সবসময় বুঝাবেন যেন যে কোনো সমস্যায় তারা আপনাকে শেয়ার করতে স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করে এবং আপনি তাকে সাহায্য করার জন্য প্রস্তুত।

  2. তাদের জোর করবেন না: আপনার সন্তান যদি স্কুলে যেতে অস্বীকার করে, তাহলে তাকে জোর করবেন না। পরিবর্তে, তাদের যুক্তি কী তা খুঁজে বের করার চেষ্টা করুন এবং এটা নিয়ে একসাথে কাজ করুন – এইভাবে আপনারা দুজন একসাথে একটি সমাধান নিয়ে আসতে পারেন।

  3. নিশ্চিত করুন যে তারা পর্যাপ্ত ঘুম পাচ্ছে: স্কুল প্রত্যাখ্যান প্রায়শই ঘটে যখন বাচ্চারা পর্যাপ্ত ঘুম পায় না কারণ তাদের শরীরের বিশ্রামের প্রয়োজন হয় যাতে তারা ক্লাসের সময় বা বাড়ির কাজের সময় আরও ভালভাবে ফোকাস করতে পারে। সুসংগত ঘুমের রুটিন স্থাপন করে এবং শোবার আগে উত্তেজক কার্যকলাপ এড়িয়ে আপনার শিশু প্রতি রাতে পর্যাপ্ত ঘুম পাচ্ছে কিনা তা নিশ্চিত করুন।

একটি শিশুর ঘুমের পরিমাণ তার বয়সের উপর নির্ভর করে। শিশুদের কতটা ঘুম দরকার তার জন্য এখানে সাধারণ নির্দেশিকা রয়েছে:

  • শিশু (0-3 মাস): প্রতিদিন 14-17 ঘন্টা

  • শিশু (4-11 মাস): প্রতিদিন 12-15 ঘন্টা

  • বাচ্চা (1-2 বছর): প্রতিদিন 11-14 ঘন্টা

  • প্রিস্কুলার (3-5 বছর): প্রতিদিন 10-13 ঘন্টা

  • স্কুল-বয়সী শিশু (6-13 বছর): প্রতিদিন 9-11 ঘন্টা

  • কিশোর (14-17 বছর): প্রতিদিন 8-10 ঘন্টা

এটা মনে রাখা গুরুত্বপূর্ণ যে এগুলি সাধারণ নির্দেশিকা এবং কিছু বাচ্চাদের অন্যদের তুলনায় কম বা বেশি ঘুমের প্রয়োজন হতে পারে। উপরন্তু, ৫ থেকে ১৫ বছর বয়সী স্কুল-বয়সী শিশুদের জন্য, তাদের সকালের রুটিনের সাথে সামঞ্জস্যপূর্ণ একটি আদর্শ ঘুমের সময়সূচী অনুসরণ করার পরামর্শ দেওয়া হয়, যেমন তাদের স্কুল সকাল ৮ টায় শুরু হলে রাত ১০ টার মধ্যে ঘুমানো।

  1. ইতিবাচক মোকাবেলা করার কৌশলগুলিকে উত্সাহিত করুন: আপনার সন্তানকে মানসিক চাপ এবং উদ্বেগ মোকাবেলার ইতিবাচক উপায়গুলি শিখতে সাহায্য করুন, যেমন গভীর শ্বাসের ব্যায়াম, ধ্যান, বা বিশ্বস্ত বন্ধু বা পরিবারের সদস্যের সাথে কথা বলা।

  2. বিশেষজ্ঞের সাহায্য নিন: যদি আপনার সন্তানের স্কুলে প্রত্যাখ্যান ক্রমাগত বা গুরুতর হয়, তাহলে বিশেষজ্ঞের সাহায্য নেওয়ার সময় হতে পারে। একজন মানসিক স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞ  আপনার সন্তানের সাথে কাজ করতে পারে তাদের স্কুলে প্রত্যাখ্যানের অন্তর্নিহিত কারণগুলি চিহ্নিত করতে এবং তাদের এটি কাটিয়ে উঠতে সাহায্য করার জন্য কৌশলগুলি প্রদান করতে।

সাধারণভাবে, স্কুলগুলিকে এমন ছাত্রদের সমর্থন করার চেষ্টা করা উচিত যারা স্কুলে যেতে অস্বীকার করছে। স্কুল প্রায়ই বাবা-মায়ের সাথে পরিস্থিতি মোকাবেলার সর্বোত্তম উপায়ে কাজ করবে, যেমন কাউন্সেলিং বা অন্যান্য সংস্থান প্রদান করে। শিক্ষকরা শিক্ষার্থীর বাসাকে তার থাকার জন্য একটি নিরাপদ জায়গা করে তোলার উপায় খুঁজে বের করেও সাহায্য করতে পারেন—উদাহরণস্বরূপ, তাদের ঘরকে বিভ্রান্তিমুক্ত রেখে এবং তাদের স্ন্যাকস এবং গেমগুলিতে অ্যাক্সেস দেওয়ার মাধ্যমে। যদি একজন শিক্ষার্থী স্কুলে যেতে অস্বীকার করে বা অন্য কোনো সেটিংয়ে থাকতে অস্বীকার করে যা স্কুল-সম্পর্কিত বলে বিবেচিত হয় (যেমন পাঠ্যক্রম বহির্ভূত কার্যকলাপ) তাহলে শিক্ষক এবং অভিভাবকদের অবিলম্বে ব্যবস্থা নেওয়া দরকার।

উপসংহারে, স্কুল প্রত্যাখ্যানের সাথে মোকাবিলা করা পিতামাতা এবং সন্তান উভয়ের জন্যই চ্যালেঞ্জিং হতে পারে। যাইহোক, একটি সক্রিয় এবং সহায়ক পন্থা গ্রহণ করে, আপনি আপনার সন্তানকে এই সমস্যাটি কাটিয়ে উঠতে এবং একাডেমিক এবং সামাজিকভাবে সফল হতে সাহায্য করতে পারেন। আপনার সন্তানের সাথে খোলামেলাভাবে যোগাযোগ করতে মনে রাখবেন, প্রয়োজনে পেশাদার সহায়তা নিন এবং জড়িত প্রত্যেকের জন্য সর্বোত্তম সমাধান খুঁজে পেতে একসাথে কাজ করুন।

care nutrition

See all author post

1 Comment

  1. […] […]

Leave a Comment

Your email address will not be published.